বৃহস্পতিবার , ফেব্রুয়ারি ২৫ ২০২১
শিরোনাম
Home / লেখাপড়া / প্রত্যাহার হচ্ছে এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস
প্রকাশিত এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রত্যাহার হচ্ছে

প্রত্যাহার হচ্ছে এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস

সদ্য প্রকাশিত এসএসসির সংক্ষিপ্ত  সিলেবাস প্রত্যাহার হচ্ছে। আজ (২৭ জানুয়ারি) বা কালকের মধ্যেই সিলেবাস প্রত্যাহার করা হবে। বুধবার দুপুরে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) জরুরি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এসএসসি শিক্ষার্থীদের জন্য ৩০ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস করে আগামী ৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।  বৈঠক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র সাহাসহ এনসিটিবি কারিকুলামের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সদ্য প্রকাশিত এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস নিয়ে ‘ক্ষোভ’ প্রকাশ করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ বেলা ১২টায় জরুরি বৈঠকে বসে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী যোগ দেন।

তখন এনসিটিবির কর্মকর্তারা বলেন, এসএসসির যে সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করা হয়েছে তাতে বিভিন্ন জায়গা থেকে আপত্তি এসেছে। প্রকাশিত সংক্ষিপ্ত সিলেবাস তিন বা চার মাসের মধ্যে শেষ করা সম্ভব নয় বলে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা শিক্ষামন্ত্রীকে জানিয়েছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) শিক্ষামন্ত্রী সিলেবাস কোন যুক্তিতে কিসের পরিপ্রেক্ষিতে এবং কীভাবে করা হয়েছে তা জানার জন্য জরুরি বৈঠক ডাকার নির্দেশ দেন।

সকালে এনসিটিবি সচিব অধ্যাপক নিজামুল করিম বলেন, সংক্ষিপ্ত সিলেবাস নিয়ে মন্ত্রী কথা বলতে চেয়েছেন, তাই আমরা বৈঠক ডেকেছি। বৈঠকে সবাইকে সিলেবাস কমানোর ক্ষেত্রে যুক্তি তুলে ধরা হবে।

মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা ফোন দিয়ে এ সিলেবাস নিয়ে আপত্তি জানিয়েছেন। শিক্ষকদের অভিযোগ, যেসব অধ্যায় বা বিষয় সব বাদ দেওয়া হয়েছে তারা ক্লাস এমনিতেই এগুলো পড়ান না। যে সিলেবাস প্রকাশিত হয়েছে এটা শেষ করতে কমপক্ষে ১০ মাস সময় দরকার। এরপরই মন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে কথা বলার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

এর আগে গত সোমবার (২৫ জানুয়ারি) এসএসসির সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। এনসিটিবি সংক্ষিপ্ত সিলেবাস করার আগে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক-কর্মকর্তা, বিশেষজ্ঞদের মতামত নিতে মাসব্যাপী কর্মশালা করে। সেখানে দেশের নামিদামি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, বাচাই করা জেলা শিক্ষা, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের নেওয়া হয়। তাদের মতামতের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় অধ্যায়গুলো রেখে সংক্ষিপ্ত সিলেবাসটি প্রণয়ন করা হয়। সেটি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে গত ১৭ জানুয়ারি তুলে দেয় এনসিটিবি।

 

 

কেএন/দুর্বার

আরও পড়ুন

বেসরকারি সব স্কুলে ভর্তি লটারিতে

বেসরকারি সব স্কুলে ভর্তি লটারিতে

এ বছর বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। ভর্তি পরীক্ষার পরিবর্তে প্রথম …