বৃহস্পতিবার , জুলাই ২ ২০২০
Home / সাহিত্য / কত বড় মনের মানুষ ছিলেন হুমায়ূন আহমেদ?

কত বড় মনের মানুষ ছিলেন হুমায়ূন আহমেদ?

সাহিত্য: হুমায়ূন ভাই কত বড় মনের মানুষ ছিলেন এই লেখাটি পড়লে কিঞ্চিৎ ধারণা করা যাবে-

অভিনেতা মীর সাব্বির একদিন হুমায়ূন ভাইকে বললো,স্যার আমার মাথায় একটা নাটকের প্লট ঘুরছে। হুমায়ূন ভাই বললেন,মাথায় কি প্লট ঘুরছে বলো। সাব্বির নাটকের প্লটটি হুমায়ূন ভাইকে বললেন।হুমায়ূন ভাই সাথে সাথে বললেন,প্লটটি আমার পছন্দ হয়েছে। আমি এই প্লট নিয়ে নাটক লিখবো। আগামী সপ্তাহে নুহাশপল্লীতে শুটিং। তিনি একবারও ভাবলেন না তাঁর মাথায় শত শত নাটকের প্লট থাকতে তিনি কেন অন্যের প্লট নিয়ে নাটক লিখবেন এবং নির্মাণ করবেন?

যথা সময়ে তিনি নাটকটি লিখলেন এবং অতি উৎসাহে নাটকটি নির্মাণ করলেন। তাঁর মতো এমন বিখ্যাত কলম জাদুকর এবং এমন জাদুকর নির্মাতা নাটকের শুরুতে মূল ভাবনায় মীর সাব্বিরের নাম দিতে দ্বিধা করলেন না। একেই বলে বড় মনের মানুষ।

অন্য প্রসঙ্গে আসি। নাটকটিতে আমি একটি চমৎকার চরিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পেলাম। চরিত্রটি হলো,একজন নাট্য পরিচালকের। যে কোন দৃশ্য ধারণের আগে হুমায়ূন ভাই দৃশ্যটি প্রথমে ভালো ভাবে বুঝিয়ে দিতেন। তারপর অভিনয় করে দৃশ্যটি দেখাতে বলতেন।

কোন অভিনেতার অভিনয় পছন্দ না হলে তিনি নিজে অভিনয় করে দেখিয়ে দিতেন। তারপর আবার রিহার্সাল করাতেন। একদম হাতে কলমে শিক্ষা। তিনি যখন অভিনয় করে দেখাতেন আমরা মুগ্ধ হয়ে তাঁর অসাধারণ অভিনয় দেখতাম। কয়েকবার রিহার্সালের পর দৃশ্যটি ধারণ করা হতো। নিচের ছবিতে এতক্ষণ যে নাটকটির কথা বললাম,সেই নাটকের একটি দৃশ্যের রিহার্সাল হচ্ছে।

 

পাশে দাঁড়িয়ে গভীর মনোযোগে হুমায়ূন ভাই দেখছেন অভিনয় ঠিকঠাক হচ্ছে কিনা?সাথে আছে হুমায়ূন ভাইয়ের প্রধাণ সহকারী পরিচালক জুয়েল রানা।মনোমত না হলেই হুমায়ূন ভাই বলতেন,ফারুক আবার করো,আহারে!আমার হুমায়ূন ভাই আমাকে আর কোনদিন বলবেননা,ফারুক আবার করো।

কথা বলতে বলতে নাটকটির নামই বলা হয়নি।নাটকটির নামঃ নাট্যমঙ্গলের কথা শুনে পূণ্যবান। মূল ভাবনাঃ মীর সাব্বির। রচনা ও পরিচালনাঃ হুমায়ূন আহমেদ। ইউটিউবে নাটকটি দেখা যাবে।

লেখা- ফারুক আহমেদ

কেএন/দুর্বার

আরও পড়ুন

মানুষ কি।। কবিতা।। আসাদ জামান

আহেন ভাই, আসা যাওয়া পঞ্চাশ, পঞ্চাশ লাশ টিপ্পা দেইখা আইবেন একশ, একশ!! লাশের সাথে সেলফি …